Saturday, September 23, 2017
Facebook Twitter LinkedIn Google+

তরুণীর ওজন ৫০০ কেজি, তাই বিমানের না!

iman-faty-women

বিজনেস লিডার ডেস্ক: আলেক্সান্দ্রিয়ার এক নারী শরীরের ওজন নিয়ে এইরকমই একটি ঘুরচক্রে পড়েছেনপড়েছেন ইমান আহমেদ নামের । চিকিৎসার জন্য ভিসা পাওয়ার পরও তার চিকিৎসা নিয়ে দেখা দিয়েছে অনিশ্চয়তা।

ইমান আহমেদ আবদুলাতি নামের আলেক্সান্দ্রিয়ার এই নারী জন্মের পর থেকেই হরমোন জনিত সমস্যায় ভুগছেন। ডাক্তাররা একে এলিফ্যান্টালিয়েসিস ডিজেস (অস্বাভাবিক ভাবে ওজন বৃদ্ধি) বলে চিহ্নিত করেছেন। মিশরের কয়েকটি হাসপাতালে তাকে দেখানো হলেও ডাক্তাররা রোগটি সারিয়ে তোলার ব্যাপারে তেমন আশাবাদ দিতে পারেনি তারা।

তবে বেশ কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষার পর সায় দেন একমাত্র ভারতেই এই চিকিৎসা সম্ভব। তাই চিকিৎসা ভিসার আবেদন করা হলে স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় ভিসা পান নি তিনি। পরবর্তীতে মুম্বাইয়ের এক চিকিৎসকের কাছে সাহায্য চাইলে তিনি টুইটারের মাধ্যমে বিষয়টি ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নজরে আনেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের হস্তক্ষেপে মানবিক কারণে তাঁকে চিকিৎসার জন্য ভারতীয় ভিসা পেতে সক্ষম হন। এরই মধ্যে ওই নারীর ভিসার আবেদন গ্রহণ করেছে কায়রোর ভারতীয় দূতাবাস।

কিন্তু দুর্ভাগ্যের ফের অন্য জায়গায়! তাকে বহন করতে রাজি হচ্ছে না কোনও বিমান সংস্থা। কারণ কায়রো থেকে ভারত পর্যন্ত সরাসরি কোনো বিমান সেবা নেই। আবার বেসরকারি বিমান সেবা গুলোতেও এতো বেশি ওজন বহন করার নীতিমালা নেই বলে জানা গেছে। বিমান পরিচালনার নীতিমালা অনুযায়ী, অসুস্থ অবস্থায় স্ট্রেচারে করে সর্বোচ্চ ১৩৬ কেজি পর্যন্ত বহনের অনুমতি দেয়া আছে। তবে আলেক্সান্দ্রিয়ার বিমান সংস্থার চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আসওয়ানি লোহানি টাইমস অব ইন্ডিয়াকে জানান, ভারত থেকে আফ্রিকায় সরাসরি কোনো বিমান সেবা নেই, কাছাকাছি বিমান বন্দর হচ্ছে জার্মানির ফ্র্যাংকফুর্টে। আমরা তার চিকিৎসায় সহায়তা করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করছি, সফল হলে বেশ খুশিই হবো।’

অন্যরকম ডেস্ক
বিজনেস লিডার

সর্বশেষ সংবাদ